সংবাদ শিরোনাম
Home / খেলাধূলা / জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ


একেএম সীমান্ত
জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট অধিনায়ক থাকবেন মাহমুদউল্লাহ। ইঙ্গিতটা দিয়েছিলেন এর আগেই। এবার বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন নিশ্চিতই করে দিলেন, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আসন্ন দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দেবেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। হাতের চোটে নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান নেই। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আসন্ন টেস্ট সিরিজে দলকে কে নেতৃত্ব দেবেন, এ নিয়ে গত কয়েকদিন ধরেই কৌতুহল ক্রিকেটপ্রেমীদের। যেহেতু সাকিব নেই, অভিজ্ঞতার বিচারে মাহমুদউল্লাহ আর মুশফিকের নামটিই চলে আসে। টেস্টে মুশফিকুর রহীম এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের সফলতম অধিনায়ক। তবে নেতৃত্বে ব্যর্থতার জন্যই কিন্তু তার জায়গায় এসেছেন সাকিব। মুশফিককে আবারও নেতৃত্বে আনা হবে কি না, সেটা নিয়ে তাই দ্বিধা-দ্বন্ধ ছিল। সেই দ্বিধা কাটিয়ে দিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে সাকিবের অনুপস্থিতিতে নেতৃত্বের দায়িত্ব পালন করবেন মাহমুদউল্লাহই।
বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি অবশ্য মুশফিকের নামটিই প্রস্তাব করেছিল। তবে বিসিবি সভাপতি তাতে সম্মত হননি। কারণটাও ব্যাখ্যা করলেন, ‘আমাদের হাতে দুটি পছন্দ, মুশফিক আর রিয়াদ। মুশফিকুর পছন্দ হিসেবে খারাপ নয়। তারা আমাকে মুশফিকের নাম বলেছে। তবে আমি তাদের বলি, যদি মুশফিককে অধিনায়ক করা হয়, তবে তাকে অধিনায়ক রাখতে হবে। জিম্বাবুয়ে সিরিজে তাকে নেতৃত্ব দেয়া হলো, পরে সাকিব ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে ফিরল, তখন কি হবে? আমি কি আবারও মুশফিককে নেতৃত্ব ছাড়তে বলব? এটা তো তার প্রতি অসম্মান হবে, আমি এটা চাই না।’
অধিনায়ক মুশফিকের সামর্থ্য নিয়ে দ্বিধার জায়গা দেখছেন না পাপন। তাকে বাংলাদেশের সফলতম অধিনায়কও মেনে নিচ্ছেন তিনি। মুশফিকের কাছ থেকে নেতৃত্ব কেড়ে নেয়া তার জীবনের সবচেয়ে কঠিনতম সিদ্ধান্ত ছিল উল্লেখ করে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘এটা আমার জীবনের কঠিনতম সিদ্ধান্তের একটি ছিল, দ্বিতীয়টি হলো সাকিবের শাস্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*